বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

অবশেষে ভালবাসার জয় – স্ত্রীর মর্যাদা পেলো পপি

মো. আশিকুর রহমান টুটুল, নাটোর প্রতিনিধি:-
অবশেষে নাটোরের নলডাঙ্গায় বিয়ের দাবিতে অনশনরত পপি স্ত্রীর মর্যাদা পেলো। বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ীতে ৫ দিন ধরে অবস্থানরত প্রেমিকা পপি’র বিয়ে হল তার প্রেমিক সাইফুলের সাথে। এর ফলে স্ত্রীর মর্যাদা পেলো পপি।
সোমবার (১১ জানুয়ারি) বিকাল সোয়া ৫টার দিকে নলডাঙ্গা উপজেলার পিপরুল ইউনিয়নের ঠাকুর লক্ষীকোল মদনহাট পাবনাপাড়া গ্রামে প্রেমিকের নিজ বাড়ীতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়েতে পিপরুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কলিম উদ্দিন ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যম কর্মিসহ বিপুল পরিমাণ উৎসুক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। বিয়েতে ৬ লক্ষ ১টাকা দেনমোহর ধার্য্য করা হয়। এই ঘটনায় এলাকায় খুশির আমেজ বিরাজ করছে।
প্রেমিক সাইফুল একই গ্রামের সিদ্দিক মোল্লার ছেলে এবং পপি একই উপজেলার সোনারমোড় এলাকার মৃত আব্দুস সোবাহানের মেয়ে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার ৭ জানুয়ারী থেকে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে প্রেমিক সাইফুলের বাড়িতে অবস্থান নেন পপি।
নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, র্দীর্ঘদিন ধরেই সাইফুল এবং পপি মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে বিষয়টি জানাজানি হবার পর গত বছরের আগষ্ট মাসে তারা গাজীপুরে অবস্থান নেয়। সেখানে তারা স্বামী স্ত্রীর পরিচয়ে দীর্ঘদিন থাকার পরে সম্প্রতি সাইফুল বাড়ী চলে আসে।
পরে পপি সাইফুলকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে নানা টালবাহানা করতে থাকে সাইফুল। এদিকে উপান্তর না দেখে পপি বিয়ের দাবিতে সাইফুলের বাড়ীতে অবস্থান শুরু করে। পরে নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারের পর স্থানীয় প্রশাসন এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।
Alert! This website content is protected!