বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

আজ পাইকগাছা পৌরসভা নির্বাচন; সকল প্রস্তুতি সমপন্ন

ইমদাদুল হক,পাইকগাছা,খুলনাঃ-
আজ শনিবার  পাইকগাছা পৌরসভার ৫ম পৌরসভা নির্বাচন । ইতিমধ্যে ৩ টি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে বাড়তি নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচান অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। শুক্রবারের মধ্যরাত থেকে নির্বাচনের সব ধরনের প্রচার-প্রচারনা ও নির্বাচনী এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।
শুক্রবার মধ্যরাত থেকে নির্বাচনের দিন শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত পৌরসভা অভ্যন্তরে সকল প্রকারের ইঞ্জিন চালিত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে।  নির্বাচনে ৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩, ৬ ও ৯ নং ওয়ার্ডের কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে প্রশাসন।
তবে নির্বাচনে যেকোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকার নেই এবং
নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হেসেন সিদ্দিকী জানিয়েছেন।
 নির্বাচনে মেয়র পদে তিনজন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিলেও প্রত্যাহারের শেষ দিনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শারীরিক অসুস্থতা দেখিয়ে মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেন। নির্বাচনে ৯টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে প্রশাসনের পক্ষে ৩নং ওয়ার্ডের সরল দীঘিরপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৬নং ওয়ার্ডের পাইকগাছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও ৯নং ওয়ার্ডের শিববাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।  মেয়র পদে আ’লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানান, তিনি ফের নির্বাচিত হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখবেন।
পাশাপাশি পৌরসভাকে মডেল পৌরসভায় রূপান্তর করবেন। সুপেয় পানি ও জলাবদ্ধতা নিরসনসহ এলাকার রাস্তা-ঘাটের ব্যাপক উন্নয়ন করবেন বলেও জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ভোটাররা তাকেই টানা তৃতীয়বারের মত ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন, সেলিম জাহাঙ্গীর।
মেয়র পদে অপর প্রতিদন্ধী সিপিবি মনোনীত কাস্তে প্রতীকের প্রার্থী এড. প্রশান্ত কুমার মন্ডল জানান, তিনি নির্বাচিত হলে দুর্নীতি, লুটপাট মুক্ত ও পরিবেশ বান্ধব সকলের বাসযোগ্য পৌরসভা গড়ার লক্ষে কাজ করবেন।
নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে কিনা সে ব্যাপারে সংশয় প্রকাশ করে বলেন, নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জয়ের ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।   নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী জানান, আইন-শৃঙ্খলার অবস্থা খুবই ভালো রয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকে পৌরসভা অভ্যন্তরে এক প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রয়েছে।
এছাড়া ৯ জন ম্যাজিস্ট্রেট ও ভোটের দিন র‌্যাবের ২টি টিম নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন। প্রতিটি কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পরিমানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। ৩, ৬ ও ৯ নং ওয়ার্ডের কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ বলা হলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে তেমনটা মনে হচ্ছে না।  সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রসঙ্গে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন এর উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি জানান, নির্বাচন শতভাগ নিরপেক্ষ হবে।
যদি কোন প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ কিংবা ভোটের দিন নির্বাচনে কোন প্রভাব খাটিয়ে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চান তাহলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।
সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন আহম্মেদ নির্বাচনের পরিবেশ ও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুবই ভাল দাবি করে ইতোমধ্যে নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।
পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৯টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে এবং মোট ভোটার ১৪ হাজার ৪শ’ ৩১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৭ হাজার ৭৩ জন ও মহিলা ভোটার ৭ হাজার ৩ শত ৫৮ জন।
প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের হয়রানী প্রসঙ্গে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এজাজ শফী জানান, পুলিশ ভোট পূর্ববর্তী ওয়ার্ড ভিত্তিক দৈনন্দিন রুটিন ওয়ার্ক করছে।
পৌরসভার আইন-শৃঙ্খলার অবস্থা খুবই ভালো রয়েছে এবং ৩০ তারিখের নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। শুক্রবার দুপুরে পাইকগাছা পৌর নির্বাচনে আচরণ বিধি লঙ্ঘন কর্তব্যে অবহেলা ব্যাবস্থা নেয়া হবে পুলিশিং ব্রিফিং কালে খুলনার পাইকগাছায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( দক্ষিন) জিএম আবুল কালাম আজাদ বলেন, পৌর নির্বাচনে আচরণ বিধি লঙ্ঘন ও দায়িত্ব-কর্তব্যে অবহেলা হলেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
Alert! This website content is protected!