বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

আড়ানীতে আ’লীগ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার:
আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ থেকে মো. শহিদুজ্জামান শহিদকে প্রার্থী মনোনীত করায় বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা।
মানববন্ধনে মো. শহিদুজ্জামান শহিদের দলীয় মনোনয়ন মনোনয়ন বাতিল চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয়রা।
রোববার (২০ ডিসেম্বর) সকালে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগ প্রার্থী শহিদুজ্জামানের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করে প্রায় ৪ হাজার নারী-পুরুষ, আড়ানী বাজার কমিটি ও মুক্তিযোদ্ধারা।
মানববন্ধনে বির্তকিত কর্মকাণ্ডে জড়িত শহিদুজ্জামান শাহিদকে  দলীয় মনোনয়ন দেয়ায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে মনোনয়নপত্র বাতিল চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বিক্ষোভকারীরা। আড়ানী পৌরসভা সংলগ্ন বাউসা অভিমুখের রাস্তায় এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
স্থানীয় আ’লীগ নেতা আড়ানী পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি আব্দুল লতিফ ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সোহেল রানা, ৮ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি সাজদার রহমান, ৫ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি মোহাম্মদ আজিজল রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মুক্তার আলী  বলেন, তৃণমূলের মতামত না নিয়েই আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। অবিলম্বে শহিদুজ্জামানের মনোনয়ন বাতিল করে  পৌর মেয়র মুক্তারকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানান তারা।
স্থানীয় পৌরবাসী আফাজ উদ্দিন, শামীম আহমেদ, মাজদার রহমানসহ আরো অনেকে বলেন, পৌর মেয়র মুক্তার আমাদের পৌরসভার যে উন্নয়ন করেছেন তা এর আগে কেউ করেনি। আমরা পৌরবাসী মুক্তারকে আবার মেয়র হিসেবে চাই।
আড়ানী বাজার কমিটির সভাপতি আজিজ আলী বলেন, মেয়র মুক্তার আড়ানী বাজারের যে উন্নয়ন করেছেন তা এর আগে কেউ করেনি। এছাড়া পৌর বাজারে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অনিয়ম তিনি শক্তহাতে দমন করেছেন। এসব কারণে আমরা তাকে পুনরায় মেয়র হিসেবে চাই।
এ বিষয়ে মেয়র মুক্তার জানান, আড়ানী পৌরবাসী আমাকে পুনরায় মেয়র হিসেবে চায়, সে জন্যই তারা মানববন্ধন করছে। আমার বিগত পাঁচ বছরের উন্নয়নের ফলস্বরূপ সাধারণ জনগণের ভালোবাসা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সমর্থ হয়েছি। আমি আড়ানী পৌরসভার সাধারন জনগণের জন্য কাজ করে যেতে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার আহ্বান আমাকে পুনরায় আড়ানী পৌরবাসীর সেবা করার সুযোগ করে দিন।
Alert! This website content is protected!