বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

চসিক নির্বাচনে পুনঃতফসিলকৃত ৪ ওয়ার্ডে ৬ প্রার্থী চুড়ান্ত

মোঃ সিরাজুল মনির :

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে পুনঃতফসিলকৃত ৪ ওয়ার্ডে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিনে গতকাল একজন প্রার্থী তার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছেন। ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মো. হারুনুর রশিদ গতকাল রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেন। আগামী ২৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া চসিক নির্বাচনে এ নিয়ে মেয়র পদে ৭ প্রার্থী সহ মোট প্রার্থী সংখ্যা দাঁড়াল ২৩৭ জন। চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, পুনঃতফসিল অনুযায়ী একটি সংরক্ষিত ওয়ার্ড এবং তিনটি সাধারণ ওয়ার্ডে মোট ৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এর মধ্যে ২ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হলে আপিল করার পর একটি মনোনয়ন বৈধ হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার একজন প্রার্থী তার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলে নতুন করে ৬ জন প্রার্থী চূড়ান্ত হয়।
চূড়ান্ত প্রার্থীরা হলেন, সংরক্ষিত ৬ নম্বর আসনের মোছাম্মদ ফারজানা পারভীন, ৩৭ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডে শফিউল আলম, আব্দুল মান্নান, মো. সালাউদ্দিন, মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ এবং ৪০ নম্বর ওয়ার্ডে নাসির আহমেদ। এছাড়া ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে মনোনয়ন সংগ্রহ করেনি কোনো আগ্রহী প্রার্থী।
এই ব্যাপারে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো.হাসানুজ্জামান  জানান, চসিক নির্বাচনে নতুন ৪ ওয়ার্ডের উপ নির্বাচনে ৬ প্রার্থীর মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়েছে। শুক্রবার সকালে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার পর প্রার্থীরা বেলা ২টা থেকে প্রচারণা শুরু করতে পারবেন। প্রচারণা চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত। সব মিলিয়ে চসিক নির্বাচনে ৭ মেয়র প্রার্থীসহ মোট ২৩৭ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এবার নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ছিল ৩০ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষ তারিখ ৩১ ডিসেম্বর।

Alert! This website content is protected!