বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

জাতির জনকের কলঙ্ক কোন অবস্থাতে বরদাস্ত করা হবে না; পুলিশ সুপার

গিয়াস উদ্দিন রানা ঃ কুষ্টিয়া জেলায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙ্গার প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলায় কর্মরত জেলা পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে চাঁদপুর জেলা
শিল্পকলা একাডেমীতে।
শনিবার ১২ ডিসেম্বের’২০ইং সকাল সাড়ে ১০ টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা
শিল্পকলা একাডেমিতে এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভার শুরুতে
পবিত্র কুরআন থেকে তেলওয়াত করেন কালেক্টরেট মসজিদের ইমাম মাওলানা মোশারফ হোসেন। প্রতিবাদ সভার সঞ্চালনা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ
আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান।
প্রতিবাদ সভায় চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান (পিপিএম বার) বলেন,
যখনি সফলকারের সুর্য বাংলাদেশকে হাতছানি দেয় ঠিক তখন একটা অপশক্তি পেছন
থেকে মাথা ছাড়া দিয়ে উঠার চেষ্টা করে। কিন্তু বাংঙ্গালীরা কখনো মাথা নোয়াবার নয়। আমরা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রতিটা সেক্টরে যদি আমাদের এ জাতীয় নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্য একস্বচ্ছভাবে যদি মুষ্টবদ্ধভাবে কাজ করতে পারি অবশ্যই কোন অপশক্তি আমাদের কখনো মাথা নোয়াতে পারবে না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের
স্বাধীনতার ধারাক বাহক, ওনার জন্ম না হলে হয়তো আমরা পরাধিনই থেকে যেতাম।
জাতির জনকের কলঙ্ক কোন অবস্থাতে বরদাস্ত করা হবে না।
প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। আরো বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর জেলা দায়রা জজ এস এম জিয়াউল হক, চিফজুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট সামসুল ইসলাম, চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসাপাতলের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ
হাবিবুল কবির, সিভিল সার্জন সাখাওয়াত উল্ল্যা, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা, এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী ইউনুস বিশ্বাস, জেলা আনসার বিডিপি এ্যাডজুটেন্ট’র সহকারি পরিচালক ইব্রাহিম খলিল, জেলা কৃষি অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জালাল উদ্দিন, বাংলাদেশ কালেক্টরেট সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা সাইফুল ইসলাম এবং চাঁদপুর জেলা ৩য় ও
৪র্থ শ্রেণী কর্মকর্তা-কর্মচারী সমিতির সভাপতি মিজানুর রহমান প্রমুখ।
প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর জেলায় কর্মরত জেলা পর্যায়ের সরকারি
সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।
Alert! This website content is protected!