বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

নবীগঞ্জ পরিবহন শ্রমিকদের ধর্মঘট, যাত্রীদের ভোগান্তি  ৬০ টাকায় ভাড়া ২৫০ টাকা

শাহরিয়ার আহমেদ শাওনঃ সিলেট বিভাগে সকল পরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে বাস ট্রাক পিকআপ শ্রমিক মালিক সংগঠনের পক্ষ থেকে তিন দিনের ধর্মঘট কার্যকর করা হচ্ছে।এতে ভোগান্তিতে যাত্রী সাধারন। গতকাল মঙ্গলবার থেকে এই ধর্মঘটি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পালন করা হবে।সিলেট বিভাগের বালি পাথর মহাল ও কোয়ারি খুলে দেওয়ার দাবিতে নবীগঞ্জ তথা সারা সিলেট বিভাগ বাস ট্রাক, মিনিবাস চলাচলের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।এতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় হবিগঞ্জ সিলেট গামী যাত্রীদের। আউশকান্দি সিলেট মহা সড়কে গিয়ে দেখা যায় সিলেট যাওয়ার জন্য অসুস্থ বৃদ্ধ রোগীরা ধর্মঘট না জেনে বাড়ী থেকে বেড় হন কোন বাস না চলার কারনে ভোগান্তিদে পড়তে হয়  যাত্রীদের এদিকে বাস পিকআপ, ট্রাক মিনিবাস না চলায় এর সুযোগে, লাইটেস,মাইক্রোবাস,নোহা যাত্রীদের কাজ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে এক গুন থেকে তিন গুন বেশী ভাড়া যেখানে আউশকান্দি থেকে সিলেট বাসে যাত্রীদের দিতে হত ৬০/৬৫ টাকা সেখানে ২০০/২৫০ টাকার গন্তব্য স্থলে যেতে হচ্ছে।এদিকে নবীগঞ্জ থেকে হবিগঞ্জ যেতেও দেখা যায় একি চিত্র অনেকেই রিস্কা টমটম,মিশুক দিয়ে যানবাহন বদলিয়ে বদলিয়ে গন্তব্য স্থলে পৌঁছেছেন। ধর্মঘট ডাক দেওয়া নিত্ববৃন্তরা বলেন সিলেটের বালি পাথর মহাল ও কোয়ারিগুলো বন্ধ থাকায় হাজার হাজার ট্রাক মালিক শ্রমিক এক বছর ধরে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।ট্রাক, পিকআপ এর ব্যাংক কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পারায় তাদের উপর মামলা হয়েছে। এমতা অবস্থায় আমরা ঘরে বসে থাকতে পারিনা বাস, ট্রাক মিনিবাস পরিবহনের শ্রমিক মালিক মিলে যানবাহন ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে।

Alert! This website content is protected!