বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

নাগরপুরে করোনা সংক্রামণ রোধ ও ফুটপাত দখল মুক্ত অভিযান

নাগরপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধি:
দ্বিতীয় ধাপে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বেড়ে যাওয়ায় সংক্রামণ এড়াতে সরকারী নির্দেশনা যথাযথ ভাবে পালন ও জনসাধারনকে সচেতন করার জন্য টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মোবাইল কোট পরিচালনা করেন উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সকালে নাগরপুর সদর বাজারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর নেতৃত্বে  মোবাইল কোট ও মাস্ক বিতরন করা হয়।
এ সময় নাগরপুর সদর বাজারে যানজট নিরসনের লক্ষ্যে ফুটপাত দখল মুক্ত রাখা সহ বাজারে আগত মাস্ক বিহীন জনসাধারনের মাঝে মাস্ক বিতরন করেন। কাচা বাজার সহ বিভিন্ন দোকান ও মাস্ক বিহীন পথচারীদের ১৮৮ ধারায় এবং মানুষজনের চলাচলে বিঘ্ন ঘটিয়ে রাস্তায় গাড়ি পার্কিং করার অপরাধে দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৯০ ধারায় মোট ১৯ টি মামলায় ২ হাজার ৭ শত টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান বলেন, দ্বিতীয় ধাপে করোনার সংক্রামণ বাড়ায় সাধারন মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে এবং সেই সাথে বেশ কিছু দিন যাবত  ফুটপাত দখল ও যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং এর জন্য যানজট সৃষ্টির অভিযোগ আসছিল তারই পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নাগরপুর থানার সহযোগীতায় এ অভিযান চালানো হয়। করোনা সংক্রামণ এড়াতে অবশ্যই সবাইকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর জানান, মাস্ক বিহীন পথচারীদের ১৮৮ ধারায়  এবং দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৯০ ধারায় জনসাধারনের চলাচলের বিঘœ ঘটিয়ে রাস্তায় গাড়ি পার্কিং করার অপরাধে জরিমানা করা হয়। প্রত্যেক দোকানে মাস্ক বিহীন সেবা নয়, এমন ফেস্টুন টানাতে হবে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ্য থেকে এ ধরনের অভিযান অব্যহত থাকবে।

অভিযানে কালে উপস্থিত ছিলেন, নাগরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আনিসুর রহমান আনিস , সদর বাজার বনিক সমিতির আহ্বায়ক মো. হাবিবুর রহমান লিটন ও পঙ্কজ কুমার সাহা।

Alert! This website content is protected!