বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

পদ্মা নদী ও সেতু ভ্রমনে ভ্রমণ তরী উদ্বোধনী মাদারীপুরের শিবচরে

মাদারীপুর সংবাদদাতা :
মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার পদ্মা নদী ও মনোমুদ্ধকর পদ্মা সেতু দেখার জন্য
পর্যাটকদের আনন্দ দিতে বাংলাবাজার ঘাট থেকে সোমবার সকালে জেলা
প্রশাসনের উদ্যোগে ৪টি ভ্রমণ তরী উদ্বোধনী করা হয়েছে। মাদারীপুর ১ আসনের
সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী প্রধান অতিথি
হিসেবে উপস্থিত থেকে ভ্রমণ তরী উদ্বোধন করেন। এ সময় লাল সবুজ রংয়ের
সুদৃশ্য ভ্রমনতরীগুলো উদ্বোধনের পর এগুলোতে পদ্মা নদী ঘুরে দেখেন চীফ হুইপ নূর-
ই-আলম চৌধুরী, জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও
কর্মকর্তারা
বাংলাবাজার ঘাটে তরী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী বলেন,
ঘাট এলাকার লঞ্চ, স্পীডবোট, হোটেল ব্যবসাসহ নানান খাতে কর্মরতদের পদ্মা
সেতুর পর্যটনে সম্পৃক্ত করতে হবে। যাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়।
সরকারের পক্ষ থেকে পদ্মা সেতুকে ঘিরে পর্যটন খাতে ব্যাপক কর্মসূচী নেয়া
হয়েছে। শীঘ্রই আপনারা সুখবরগুলো পাবেন। পর্যটন উপভোগ করতে সারা বাংলাদেশ
থেকে মানুষ শিবচর আসে। ইতোমধ্যে শিবচরের চরাঞ্চলে ১২ একর জায়গায় একটি
দুগ্ধ খামারের কাজ সেনাবাহিনীর তত্তাবধায়নে শুরু করেছে। এতে একসাথে
কর্মসংস্থান ও পর্যটনের সুযোগ সৃষ্টি হবে। জেলা প্রশাসনের এমন উদ্যোগকে
তিনি স্বাগত জানান।
চিফ হুইপ আরো বলেন, যে ভাবে বাংলাদেশে মৌলবাদ বৃদ্ধি পাচ্ছে ও ধর্ম নিয়ে
রাজনীতি শুরু হয়েছে। তা রুখতে বিনোদন, খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডর
মাধ্যমে সকলকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। নতুন প্রজন্মকে নেশা থেকে মুক্ত রাখতে
সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হলে এ ধরনের
কর্মকান্ডগুলো আমাদের হাতে নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই ইসলামের
জন্য বেশি কাজ করছেন। তিনি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে তার মানবিকতার
প্রমাণ দিয়েছেন। শুধু আশ্রয় দিয়েই নয় তিনি ভাষানচরে এ সকল রোহিঙ্গা
মুসলিমদের জন্য আধুনিক জীবন যাপনেরও ব্যবস্থা করেছেন।
মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো
উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুনির চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান আ.
লতিফ মোল্লা, পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা

মো. আসাদুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. শাজাহান মোল্লা,
সাধারন সম্পাদক ডা: মো: সেলিম প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, ্#৩৯;শিবচরের
চরাঞ্চলের জেলেদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ও পর্যটনের বিকাশ সাধনে এমন
উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এতে করে জেলেদের বাড়তি আয়ের সুযোগ তৈরি হবে।
এছাড়া পদ্মানদী ও এর চরাঞ্চলের সৌন্দর্য সহজেই উপভোগ করতে পারবে
ভ্রমনপ্রেমীরা। নির্দিষ্ট দূরত্ব থেকে পদ্মাসেতু দেখতে পাবে তারা। আশাকরি
পর্যটকরা পদ্মা সেতু ও মুক্তিযুদ্ধদের অসংখ্য ভাস্কর্য সমৃদ্ধ শিবচরের অপরুপ
সৌন্দর্য্য দেখে বিমোহিত হবে।্#৩৯;

Alert! This website content is protected!