বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

পাইকগাছায় প্রথম স্ত্রীকে গোপন করে দ্বিতীয় বিয়ে করার অভিযোগে থানায় মামলা; স্বামী শ্বাশুড়ী আটক

পাইকগাছা(খুলনা) প্রতিনিধিঃ-
 পাইকগাছায় প্রথম স্ত্রীকে অ-স্বীকার করে দ্বিতীয় বিয়ে করার অভিযোগে স্বামী-শ্বাশুড়ী ও ননদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ নির্যাতিত নারীর স্বামী ও শ্বাশুড়ীকে গ্রেপ্তার করেছেন। এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হরিদাশ কাঠি গ্রামে।
থানায় মামলার বিবরনে জানাগেছে ৭ বছর পুর্বে ঢাকায় গার্মেন্টস চাকুরী সুত্রে হরিদাশ কাঠির হয়বত আলীর ছেলে মীর তৈয়েবুরের সাথে পিরোজপুরের রুমা নামে এক গার্মেন্টস কর্মির সাথে পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে বন্ধুত্ব ও বিগত ২০১৬ সালের ১ আগস্টে দু’জনের বিয়ে হয়। পরবর্তীতে এ দম্পত্তি মাঝে মধ্যে গ্রামের বাড়ীতে  আসত। এদের সংসারে ৪ বছরের তোবা নামে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। সংসার জীবনের এক পর্যায়ে তৈয়েবুর প্রথম স্ত্রীকে এড়িয়ে প্রলোভনে পড়ে দ্বিতীয় বিয়ে করলে সংসারে অশান্তি দেখা দেয় এবং দ্বিতীয় স্ত্রী এক সময় স্বামীর পুরো নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয়। এর জন্য রুমা শ্বাশুড়ি ও ননদকে দায়ী করেছেন। পরবর্তীতে তৈয়েবুর রুমাকে নির্যাতন করে অ-স্বীকার করলে শেষ পর্যন্ত সে স্বামী-শ্বাশুড়ী ও ননদের বিরুদ্ধে সোমবার থানায় মামলা করেছেন,যার নং-২ তাং ০১-০৩-২১ইং  এ মামলায় ইন্সপেক্টর (অপারেশন) দেবাশীষ বিশ্বাস তৈয়েবুর ও মা পারুল বেগমকে গ্রেপ্তার করেছেন। ওসি মোঃ এজাজ শফী জানান, নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত আসামী ছেলে ও তার মাকে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।
Alert! This website content is protected!