বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

পিরোজপুরে বিআরটি বাস কর্তৃক শ্রমিক মারধরে বিচারের দাবীতে অর্নিষ্টকালের জন্য বাস ধর্মঘট

মো: সানমুন রেজা, পিরোজপুর থেকে: 
পিরোজপুরে বিআরটিসি বাসের ষ্টাফ ও কাউন্টারের লোকজন কর্তৃক সাধারন পরিবহনের বাসের শ্রমিকদের মারধরের বিচারের দাবীতে বাস শ্রমিকদের উদ্যোগে অনির্দষ্ট কালের জন্য ধর্মঘটের আহবান করা হয়েছে। রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) সকাল থেকে এ ধর্মঘট চলছে। এতে পিরোজপুরের সাথে সংযোগ ১০টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। পিরোজপুর জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে এ ধর্মঘট আহবান করা হয়েছে। জানা গেছে, গত শনিবার বিকালে বিআরটিসি বাস শ্রমিক ও কাউন্টারের লোকদের কর্তৃক সাধারন পরিবহনের বাসের এক শ্রমিককে মারধরের বিচারের দাবীতে এ ধর্মঘট আহবান করা হয়েছে। এতে পিরোজপুরের সাথে ঝালকাঠী,বরিশাল, খুলনা, বাগেরহাট, পাথরঘাটা, ভান্ডারিয়া, কাউখালী, মঠভাড়িয়া, নাজিরপুর সহ দক্ষিন অঞ্চলের ১০টি রুটে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এতে সাধারন যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। পিরোজপুর জেলা বাস ও মিনি বাস শ্রমিক ইউনিয়ন সমিতির সভাপতি মো. হান্নান শেখ জানান, গত শনিবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে চরখালী ফেরী থেকে বিআরটিসি বাস নিয়ম লঙ্গন করে কয়েক জন যাত্রীকে বাসে উঠায়। এর প্রতিবাদ করেন আমাদের বাসের সুপার ভাইজার মো. রাজীব হোসেন। এর জের ধরে বিআরটিসি বাসের ড্রাইভার প্রসঞ্জিত,বিআরটিসির স্থাণীয় কাউন্টারের লোক তারেক সহ কয়েকজেন ওই সুপার ভাইজারকে বেদম মারধর করে। এ ঘটনার বিচারের দাবীতে ও নিয়ম-নীতি অনুযায়ী বিআরটিসি বাস চালানোর
দাবীতে জেলা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অনির্দিষ্ট কালের জন্য এ বাস ধর্মঘট আহবান করা হয়েছে।
Alert! This website content is protected!