বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে হামলার মামলায় তদন্ত কর্মকর্তার জবানবন্দি প্রদান

মোঃ রাহাতুল ইসলাম, সাতক্ষীরা  জেলা প্রতিনিধিঃ- 
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় সাবেক বিরোধীদলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার মামলায় আজ মঙ্গলবার তদন্ত কর্মকর্তা শেখ সফিকুল ইসলাম আদালতে জবানবন্দী প্রদান করেছে। একই সাথে আসামীপক্ষের আইনজীবীরাও তাকে জেরা করেছেন।
সাতক্ষীরার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হুমায়ুন কবিরের আদালতে তার জবানবন্দী ও জেরার বক্তব্য রেকর্ড করা হয়।
এনিয়ে এ মামলায় এ পর্যন্ত মোট ২০ জনের সাক্ষ্য ও জেরা শেষ হয়েছে। এদিকে, এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবির আবেদনের প্রেক্ষিতে ২০ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য প্রদান শেষে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ করা হয়েছে। এ মামলায় আসামীদের পরীক্ষা (৩৪২) এবং যুক্তিতর্কের জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে ২৯ ডিসেম্বর।
এসময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মুনির, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চ্যাটার্জী, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শাহীন মৃধা ও পিপি অ্যাড. আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে, আসামীপক্ষে ছিলেন এ্যাড. আব্দুল মজিদ, অ্যাড. তোজাম্মেল হোসেন তোজামসহ কয়েকজন।
উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা হিসাবে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ধর্ষিতা মুক্তিযোদ্ধা পত্নী দেখতে সাতক্ষীরায় আসেন। এদিন তিনি কলারোয়া হয়ে মাগুরা ফিরে যাবার পথে তার গাড়িবহর নিয়ে হামলার শিকার হন। সেখানে গুলি এবং মারপিটের ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় পুনরুজ্জীবিত মামলার বিচারকাজ শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে ২০ জন সাক্ষীর জবানবন্দী গ্রহন করা হয়েছে। আজও আদালতে আসামী বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৫০ জন উপস্থিত ছিলেন।
Alert! This website content is protected!