বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

প্রেমের প্রলোভনে চাঁদা আদায়ের চেষ্টা পুলিশি তৎপরতায় গ্রেফতার ৭

মোবাইলের  মাধ্যমে পরিচয় এর পরে দাওয়াত আর তাতেই বিপত্তি ঘটে নওগাঁর আএাই উপজেলার নাসির উদ্দীন এর কপালে।

জানা যায় মোবাইলে পরিচয় হয় মোছাঃ বুলবুলির সাথে নাসির উদ্দীন এর গত ১২/১২/২০২০ ইং তারিখে মোবাইলে দাওয়াত দিলে সদর উপজেলার বাঙ্গাবাড়িয়া বিহারি কলোনিতে দাওয়াত খেতে আসেন নাসির উদ্দীন। এক সময়  আসামী বুলবলি তাকে কৌশলে ডেকে অন্য এক রুমে নেন এবং মোবাইল কেড়ে নিয়ে তালাবদ্ধ করে এবং ০৫ (পাঁচ) লক্ষ টাকা  চাঁদা দাবি করে।

নাসির উদ্দিন চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে অভিযুক্ত বুলবলি সহ অন্যান্য আসামীরা নাসির উদ্দিন কে মারধর করে এবং চাঁদা না দিলে হত্যার হুমকি দেয় এবং তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে।

 

ঘটনার এবিষয়ে নাসির উদ্দিন এর পরিবার নওগাঁ থানায় অভিযোগ করলে মাননীয় পুলিশ সুপার প্রকোশলী জনাব আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম স্যারের নির্দেশনায় জনাব রাকিবুল আক্তার এএসপি জনাব আবু সাইদ এএসপি সদর সার্কেল, জনাব মোঃ সোহরাওয়ার্দী হোসেন অফিসার ইনচার্জ নওগাঁ সদর থানা, ওসি তদন্ত জনাব মুঃ ফয়সাল বিন আহসান পুলিশ পরিদর্শক তাজমিলুর রহমান এসআই আবদুল মজিদ এসআই নাজমুল জান্নাত শাহ তারিকুল ইসলাম ও আবদুল্লা ফারুক ও ফোর্স সহ বিশেষ অভিযান চালিয়ে আসামি বুলবুলি, বাহাদুর শেখ, ইদ্রিস আলি, মোছাঃমুক্তা, মোঃ আল আমিন, মোছাঃ মুন্নি বিবি, মোঃ এনামুল হককে গ্রেফতার করে।

এবিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, আসামিরা মোছাঃ বুলবুলি বেগমের মাধ্যমে বিভিন্ন লোকজন কে মোবাইল ফোনে কথা বলে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কৌশলে নিয়ে এসে আটক করে,বিবস্ত্র করে,সাংবাদিক পরিচয়ে ছুবি তুলে এবং ফেসবুক সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উক্ত ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে চাঁদাদাবী সহ চাঁদা আদায় করে থাকে

Alert! This website content is protected!