বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

ফেনীর ধলিয়ায় মাকে কোপানোর ১ সপ্তাহ পর ছেলে আগুনে পুডে ছাই।

মো: ওমর ফারুক, ফেনী প্রতিনিধি :-

ফেনী সদর উপজেলাধীন ধলিয়া ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামে  মঙ্গলবার রাতে বসতঘরে মো: সোহাগ নামের এক যুবক আগুনে পুড়ে অঙ্গার হয়েছে। মাকে কুপিয়ে আহতের মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যেই এমন বিভৎস্য ঘটনার শিকার হন বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী সূত্র জানায়, টাকা না পেয়ে সপ্তাহ খানেক আগে সোহাগ তার মাকে কুপিয়ে আহত করে। এরপর থেকেই কিছুটা অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করে সে।  মঙ্গলবার রাতে সোহাগের বসতঘরে আগুন লাগে। সে ওই আগুনেই পুড়ে ছাঁই ছাই হয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা মো. সোহাগের ভস্মীভূত লাশ পুলিশে খবর দিলে পুলিশ তার লাাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আবুল বশর সবুজ বলেন, বসতঘর না থাকায় অলিপুর গ্রামের নুর নবীর বাড়িতে থাকতেন মৃত ছালেহ আহমদের স্ত্রী নিলুফা আক্তার বালি ও মো. সোহাগসহ তার দুই ছেলে। নুর নবীর বাড়ির সবাই ঢাকা ও অন্যত্র বসবাস করেন। গত ৬ জানুয়ারি সোহাগ তার মাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। বর্তমানে তিনি ফেনী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ওমর হায়দার জানান, বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পুড়ে যাওয়া লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

Alert! This website content is protected!