বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

বাগেরহাটের চিত্রা নদীতে বোট ক্লাবের উদ্বোধন

বাগেরহাট প্রতিনিধি // সৈকত মন্ডলঃ-
সুন্দরবনের মূল ভূখন্ড থেকে প্রায় শত কিলোমিটার উত্তরে বাগেরহাটের ফকিরহাট ও চিতলমারী উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষে বয়ে যাওয়া খরস্রোতা চিত্রা নদীর বিস্তীর্ণ চর ও আশপাশে নদীর দু’পাড়ে ১৫-২০ টি গ্রাম জুড়ে প্রাকৃতিক ভাবে গড়ে উঠেছে সুন্দরবনের বিভিন্ন গাছপালা। বাঘ-হরিণের দেখা না মিললেও সুন্দর বনের নানা ধরনের বন্য প্রাণির উপস্থিতি রয়েছে এখানে। ঠিক যেন সুন্দরবনেরই একটা অংশ। মেছো বাঘ, বাঘডাসা, খাটাশ, বিষধর সাপ, তক্ষক, বনবিড়াল, শিয়াল, গুঁইসাপসহ বিপন্ন প্রজাতির বন্যপ্রাণি রয়েছে এখানে।
এছাড়া প্রতিদিন হাজার-হাজার পাখি এসে এখানে রাতে আশ্রয় নেয়। মাছরাঙা, ঘুঘু, শালিক, টিয়া, পানকৌড়ি, বক, দোয়েল, ঘড়িয়াল, টুনটুনিসহ প্রায় অর্ধশত প্রজাতির পাখির আনাগোনা রয়েছে এখানে। এছাড়া সুন্দরী, গোলপাতা, কেওড়া, গেওয়া, ওড়াসহ নানা প্রজাতির গাছ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।
এখানে এক মনোরম পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই ভ্রমনে আসেন চিত্রা নদীর দুই পাড়ে অবস্থিত এই মিনি সুন্দরবন দেখতে।
জনসাধারনের বিনোদনের জন্য এবং নদীতে ইঞ্জিন চালিত নৌকায় ঘুরাঘুরি করা সহ মিনি সুন্দরবন দেখার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তৈরী করা হয়েছে ইঞ্জিন চালিত নৌকা। গঠন করা হয়েছে একটি বোট ক্লাব।
বুধবার দুপুরে আনুষ্ঠানিক ভাবে বোটক্লাব উদ্বোধনের লক্ষ্যে নতুন তৈরী করা ইঞ্জিন চালিত নৌকায় চড়ে মিনি সুন্দরবন পরিদর্শন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান স্বপন দাশ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: তানভীর রহমান।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মোস্তাহিদ সুজা, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) রহিমা সুলতানা বুশরা, মূলঘর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড: হিটলার গোলদার, উপজেলা সহকারি প্রোগ্রাম অফিসার শাহিনা আক্তার প্রমূখ।
Alert! This website content is protected!