বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

বানারীপাড়ার গন ধর্ষণ মামলার ৫ আসামীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট

রাহাদ সুমনঃ-
বরিশালের বানারীপাড়ার চাখারে গন ধর্ষণ মামলার ৫ আসামীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেছে পুলিশ।
সম্প্রতি ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বানারীপাড়া থানার ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) মো. জাফর আহম্মেদ আদালতে এ চার্জশীট দাখিল করেন। চার্জশীটভূক্ত আসামীরা হলেন, চাখার বাজারের রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়ী মো. জুয়েল সরদার, সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের মাদারকাঠী এলাকার গরুর ব্যাপারী মো. হেমায়েত হোসেন হাওলাদার ও তাদের সহযোগী ওই গ্রামের মো. শহাদাত হোসেন, আছমা বেগম ও উদয়কাঠি ইউনিয়নের লবনসাড়া গ্রামের অটোচালক মো. আমির হোসেন। এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) মো. জাফর আহম্মেদ জানান, ১৫ জুলাই রাতে উপজেলার চাখার বাজার সংলগ্ন মাদারকাঠী গ্রামের মো.জসিমের ঘরে এক যুবতীকে (২০) চাখার বাজারের রেষ্টুরেন্টের মালিক মো. জুয়েল সরদার ও সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের মাদারকাঠী এলাকার গরুর ব্যাপারী মো. হেমায়েত হোসেন হাওলাদার জোরপূর্বক ধর্ষন করে। ওই দুই ধর্ষক ও তিন সহায়তকারীসহ ৫ জনকে আসামী করে  ভিকটিম বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।  ওই রাতেই ভিকটিমকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করার পাশাপাশি মামলার তিন আসামী জুয়েল সরদার ও সহযোগী মো. শহাদাত হোসেন এবং অটোচালক মো. আমির হোসেনকে গ্রেফতার করে ১৬ জুলাই সকালে বরিশাল কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়। ওই মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে আসামীদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় ৯ ডিসেম্বর বুধবার আদালতে এ চার্জশীট দাখিল করা হয়।

Alert! This website content is protected!