বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

বানারীপাড়ায় বিজয়ের মাসে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে অসম্মান করার অভিযোগ

রাহাদ সুমনঃ-
৭১’র রণাঙ্গনে নিজের জীবন বাজি রেখে পাকিস্তানী হায়নাদের বিরুদ্ধে সম্মুখ যুদ্ধ করা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে বিজয়ের মাসে অসম্মান  করায় ফুঁসে উঠছে বরিশালের বানারীপাড়া। জানা গেছে উপজেলার ইলুহার ইউনিয়নের মলুহার সমাজ কল্যাণ সমিতি মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করেন। উক্ত টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছালাম। ওই টুর্নামেন্টে সভাপতিত্ব করেন সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও ইলুহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম। স্বাগত বক্তৃতা ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একে এম আমিনুল হক সোহেল। তারা লিখিত ভাবে বানারীপাড়া প্রেসক্লাবকে জানান, এই বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার ঘৃণ্য প্রয়াসে বরিশাল মেট্রো নামে একটি অনলাইন পোর্টালে ১৯ ডিসেম্বর আবুল বাসার বাদশা নামের একজন লোককে ওই টুর্নামেন্টের উদ্বোধক দেখিয়ে সংবাদ প্রকাশ করানো হয়। এ বিষয়টি নিয়ে এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। যেখানে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা দিনের আলোতে বিকেল ৩টার সময় খেলাটির উদ্বোধন করেন সেখানে ওই ব্যক্তির নাম উল্লেখ করে সংবাদ প্রকাশ করায় দেশের একজন বীর সন্তানের অবমাননা হয়েছে বলে মনে করেন মলুহার সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ সকল নেতুৃবৃন্দ এবং এলাকার সচেতন মহল। এনিয়ে ওই এলাকায় বিক্ষোভও হতে পারে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। সমাজ কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম জানান, আবুল বাসার বাদশা শেখ রাসেল শিশু-কিশোর পরিষদের বানারীপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি হওয়ায় ইউনিয়নের আওয়ামী পরিবারের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছিলো। কেননা এই ব্যক্তি এবং তার পরিবার কখনও স্বাধীনতার স্ব-পক্ষের শক্তি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলো না। । ওই কমিটি প্রকাশ পাওয়ার পরে এনিয়ে ইলুহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ সহ সহযোগী সংগঠনের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ সংবাদ মাধ্যমে প্রতিবাদও জানিয়েছিলেন।  এদিকে ইলুহার ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা সংসদও বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।
Alert! This website content is protected!