বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

বান্দরবানে পুলিশ সদস্যকে মারধরের অভিযোগে ১০ চালক আটক

আকাশ মার্মা মংসিং বান্দরবানঃ বান্দরবানে ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সায় অতিরিক্ত যাত্রী নেয়ার প্রতিবাদ করায় এক পুলিশ সদস্যকে মারধর করেছে শ্রমিকেরা। এঘটনায় পুলিশ ১০ জন অটোরিক্সা চালককে আটক করেছে ।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বান্দরবান শহরের ট্রাফিকমোড় থেকে বালাঘাটা যাবার পথে ব্যাটারী চালিত একটি অটোরিক্সা (টমটম) গাড়ীতে ৫ জন যাত্রী ছিলো। পাশাপাশি অনেক মালামালও ছিলো গাড়ীতে। তারপরও চালক আরও একজন অতিরিক্ত যাত্রী নিতে চাইলে প্রতিবাদ করে গাড়ীতে অবস্থানরত যাত্রী পুলিশ সদস্য রনি শর্মা। প্রতিবাদ করায় পুলিশ সদস্যের সঙ্গে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে চালক’সহ অন্য চালকেরা।
বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ের অটোরিক্সা গাড়ীর চালক সোহেল এবং লাইনম্যান’সহ কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে মারধর করেন।
এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে অটোরিক্সা চালক ১০ জনকে আটক করে, তবে ঘটনার মূলহোতা চালক সোহেল পলাতক রয়েছে।
অটোরিক্সা গাড়ী মালিক সমিতির নেতা মো. আরিফ জানান, পুলিশ সদস্য এক যাত্রীর সঙ্গে অটোরিক্সা গাড়ী চালকদের বাকবিতন্ডার খবর পেয়েছি, পরে কয়েকজন শ্রমিক পুলিশ সদস্যকে মারধর করেছে বলেও জেনেছি। বিষয়টি পুলিশ সদস্য সদর থানায় জানালে ১০ জন শ্রমিককে আটক করে পুলিশ।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বান্দরবান  সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, পুলিশ সদস্যকে মারধরের ঘটনায় ১০ জনকে আটক করা হয়েছে, তাদের থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও কারা জড়িত আছে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে, আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে
Alert! This website content is protected!