বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

বিএনপির জনসভায় আসা নেতাকর্মীদের পথে পথে ‘মারধর’

নতুন ভাবনা ডেস্কঃ-  সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ এনে ডাকা বিএনপির বরিশাল বিভাগীয় জনসভায় আসা নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নগরীতে প্রবেশের বিভিন্ন পয়েন্টে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়ে এই হামলা করেছে বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। পাশাপাশি সমাবেশ চলাকালে বিএনপির দুই গ্রুপের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনাও ঘটেছে। এ সময় নেতাকর্মীরা একে অপরের ওপর চেয়ার ছোড়াছুড়ি করেন। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

সমাবেশ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ। সমাবেশচলাকালে বিকাল ৫টার দিকে শ্লোগান দেওয়া নিয়ে নিজেদের মধ্যে চেয়ার মারামারি শুরু করেন নেতা-কর্মীরা। মাঠের মধ্যে দুটি অংশে বিভক্ত হয়ে চলে চেয়ার ছোড়াছুড়ি। কয়েক মিনিট ধরে চলে। পরে নেতৃবৃন্দ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এর কিছুক্ষণ পরে আবার সমাবেশ শুরু হয়।

এদিকে বরিশালের মহাসমাবেশ সফল করতে ঢাকা থেকে যোগ দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন। পাশাপাশি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেওয়া বিএনপি প্রার্থী তাবিথ আউয়ালও যোগ দেন।

জানা গেছে, বরিশাল বিভাগীয় সমাবেশ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে বরিশাল জিলা স্কুল মাঠে শুরু হয়। সেখানে আসতে বরিশাল নগরীর বিভিন্ন প্রবেশ পথে ছিল পুলিশি চেকপোষ্ট ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের অবস্থান।

নগরীর লঞ্চঘাটে দফায় দফায় বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধর করার অভিযোগ করেছেন বরিশাল মহানগর বিএনপির সহ-সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক তারিন।

তিনি বলেন, নগরীর আগরপুর রোডে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। বরিশালের প্রবেশপথে ছিল কড়াকড়ি। তিনজনের বেশি দেখলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। অটোরিকশা থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। এমনকি এক পর্যায়ে সদর রোডই বন্ধ করে দেয় পুলিশ। তারপরও বরিশাল জিলা স্কুল মাঠ মানুষে পরিপূর্ণ হয়েছে।

বরিশাল সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মজিবুর রহমান সারোয়ারের সভাপতিত্ব সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ডা. শাহাদাত হোসেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু, খুলনা সিটি করপোরেশনের প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল প্রমুখ।

সমাবেশের ১৮ ঘণ্টা আগে অনুমতি পেয়েছে বরিশাল বিএনপি। তবে তাদের দাবিকৃত স্থানে নয়। ঈদগাহ ময়দান বা সিটি করপোরেশেনের সামনে সমাবেশ করার অনুমতি চেয়েছিল বিএনপি। কিন্তু বুধবার রাতে তাদের শর্তসাপেক্ষে জিলা স্কুল মাঠে সমাবেশ করার অনুমতি প্রদান করে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ। সমাবেশকে কেন্দ্র করে সমাবেশস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Alert! This website content is protected!