বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বরিশালে সম্ভাব্য সফর নিয়ে আগাম প্রস্তুতি

রাহাদ সুমন,বিশেষ প্রতিনিধি:

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বরিশালের উজিরপুরে সম্ভাব্য সফর নিয়ে আগাম প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। জানা গেছে,গত শুক্রবার ভারতীয় হাই কমিশন এবং সে দেশের স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) দু’টি প্রতিনিধিদল বরিশাল এসে সম্ভাব্য সফরের খুঁটিনাটি সব বিষয় পরখ করে গেছেন।

দিনক্ষণ চূড়ান্ত না হলেও  মার্চে ভারতের প্রধানমনস্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের বিষয়টি আলোচিত হচ্ছে। বাংলাদেশে সফরে এলে তিঁনি সনাতন ধর্মাবলম্বিদের তীর্থ স্থান হিসেবে পরিচিত বরিশালের উজিরপুরের ‘সুনন্দা শক্তিপীঠ মন্দির’ (শ্রী শ্রী উগ্রতারা মন্দির) পরিদর্শন করতে পারেন এমন প্রত্যাশায় আগাম এ প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত উপ-মহাদেশের ৫১টি সতী পীঠের অন্যতম বরিশালের  উজিরপুর উপজেলার শিকারপুরের সুনন্দ শক্তি পীঠ বা উগ্র তারা মন্দির সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম পবিত্র তীর্থ স্থান হিসেবে বিবেচিত। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সম্ভাব্য এ  সফরের জন্য নিরাপত্তা, যাতায়াত, আবাসন ও মেডিকেল সুবিধা সহ সংশ্লিস্ট সকল সুযোগ-সুবিধা পরখ করতে শুক্রবার সকালে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী এবং ভারতীয় হাইকমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি অনিমেষ চৌধুরীর নেতৃত্বে বরিশাল এসেছিলেন ভারতীয় হাইকমিশন এবং তাদের স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) দু”টি দল। তারা বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতাল ( শেবাচিম) ও উজিরপুরের ‘সুনন্দ শক্তিপীঠ মন্দির’ পরিদর্শন করেন। মন্দির পরিদর্শনকালে জেলা ও পুলিশ প্রশাসন এবং মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় তারা উজিরপুরের ‘সুনন্দা শক্তিপীঠ মন্দিরে’ যাতায়াত ব্যবস্থা, সফরকালে মেডিকেল সুবিধা, আবাসন সুবিধা এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পর্কে খোঁজখবর নেন। পরিদর্শন শেষে ওইদিন বিকেলে তারা সড়ক পাথে গোপালগঞ্জের উদ্দেশ্যে বরিশাল ত্যাগ করেন। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সম্ভাব্য সফরের প্রস্তুতির জন্য ভারতীয় অগ্রগামী দলটি গত ২৪ ফেব্রুয়ারী থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ক বরিশাল ছাড়াও গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া, ওড়াকান্দি ঠাকুরবাড়ি, কুষ্টিয়ার শিলাইদহ ও বাঘা যতীনের পৈতৃক ভিটা পরিদর্শন করেন বলে জানা গেছে। এদিকে  ভারতের প্রধানমন্ত্রী আকাশ কিংবা সড়ক পথে বরিশাল সফরে আসতে পারেন,। এখানে অবস্থানকালে তাঁর সার্বিক নিরাপত্তা, চিকিৎসা, খাবার, আবাসন ও যাতায়াত ব্যবস্থা সম্পূর্ন প্রস্তুত রাখতে সংশ্লিস্ট সব প্রশাসনে আগাম প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। বরিশাল জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে এলে তিঁনি সনাতন ধর্মের তীর্থ স্থান উজিরপুরের শিকারপুরের ‘সুনন্দা শক্তিপীঠ মন্দির’ পরিদর্শন করতে পারেন বলে পররাস্ট্র মন্ত্রনালয় থেকে জানানো হয়েছে। এ প্রসঙ্গে বরিশালের জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দায় বলেন, ভারতীয় হাইকমিশন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বরিশাল সফরের দিনক্ষন জানায়নি। তবে তাদের অগ্রগামী একটি দল বরিশালে ঘুরে গেছে। আমরা অধীর আগ্রহে ও সানন্দ্যে তাঁর বরিশালে শুভাগমণের  অপেক্ষায় রয়েছি। এ জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল ধরণের প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হবে

Alert! This website content is protected!