বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

ভালুকায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু; স্বামী গ্রেফতার

ওমর ফারুক তালুকদার, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ- 
ময়মনসিংহের ভালুকায় আয়েশা আক্তার পপি (২০) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ। বৃহস্পিতিবার দুপুরে পূর্ব ভালুকা এলাকার একটি বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।
পপিকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে, না শ্বশুরবাড়ির নির্যাতন সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন তা নিয়ে রহস্য তৈরি হয়েছে।
তবে পপির মায়ের অভিযোগ, তাদের মেয়েকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখেছে পপির স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন।
এ ঘটনায় পপির মা ফিরুজা খাতুন বাদী হয়ে ভালুকা মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন। এ ঘটনায় পপির স্বামী নিশাদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
পপির মা ফিরুজা খাতুন জানান, ‘দুই বছর আগে পপির সাথে নিশাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই অটো রিক্সা কিনে দেওয়ার জন্য নিশাদ ও তার বাবা আব্দুল লতিফ নানা ভাবে পপিকে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করতেন। পপিকে আমাদের কাছে যেতে দেয়া হতো না। এমনকি ফোনেও কথা বলতে দিতেন না নিশাদ ও তার পরিবার।’
ফিরুজা খাতুর আরও বলেন, ‘ওরা আমার মেয়েকে খুন করেছে। আমি আসহায়, মেয়ে হত্যার বিচার আমি পাবোনা। এদের বিচার আল্লাহ করবে।’
ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে। জড়িত অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’
Alert! This website content is protected!