বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

 মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান 

এস এম মাসুদ রানা,বিরামপুর (দিনাজপুর)প্রতিনিধি-
“আশ্রয়নের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার” এই স্লোগানকে সামনে রেখে ভিডিও দকনফারেন্সিং এর মাধ্যমে মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (২৩জানুয়ারি) সকালে বিরামপুর উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে মুঠোফোন সংযুক্ত ছিলেন বিরামপুরের উন্নয়নের রূপকার দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক (এমপি)। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম রাজু,নবনির্বাচিত পৌর মেয়র অধ্যাপক আক্কাস আলী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেজবাউল ইসলাম মন্ডল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে কুলসুম বানু, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহসিয়া তাবাসসুম, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মিথুন সরকার, বিরামপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ফরহাদ হোসেন,
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান, কৃষি কর্মকর্তা নিকছন চন্দ্র পাল, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কাওছার আলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানা, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নূর আলম,একাডেমিক সুপারভাইজার আব্দুস সালাম,উপজেলা আ.লীগের সহ সভাপতি শীবেশ ককুন্ড,নাড়ু গোপাল কুন্ডু, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক মাষ্টার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক গোলজার হোসেন,
উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবু হেনা মোঃ মোস্তফা কামাল,বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, জনপ্রতিনিধিগণ, শিক্ষক, বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দসহ প্রমুখ।
এ সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সারা দেশে একযোগে ৬৬ হাজার ১শত ৮৯ টি ভূমিহীনকে ভূমি ও গৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় বিরামপুরে ৪শত ১৫ ভূমিহীনকে জমির দলিল এবং ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হয়। সকল ঘরে বিদ্যুৎ ও সুপেয় পানি সরবরাহের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। প্রতিটি জমি ও বাড়ির মালিকানা স্বামী-স্ত্রীর যৌথ নামে দেওয়া হয়েছে। দেশের গৃহহীন প্রতিটি মানুষ ঘর না পাওয়া পর্যন্ত এই কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানান সংশ্লিষ্ঠরা।
Alert! This website content is protected!