বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

শীতবস্ত্রের অভাবে যমুনাপাড়ের দুস্থদের দুর্বিষহ জীবনযাপন; শীতবস্ত্র বিতরণ জরুরী। 

মোঃ আজাদুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ 
শাহজাদপুরসহ উপজেলার যমুনা নদীর তীরবর্তী অঞ্চলের অসহায় উদ্বাস্তুরা শৈতপ্রবাহের তীব্র শীতে অসহনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। শীতবস্ত্রের অভাবে রীতিমতো তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।
 যমুনা নদীর তীরবর্তী ফাঁকা এলাকাগুলোতে সজোরে কনকনে হাওয়া বইতে শুরু করায় শীতের তীব্রতা দুর্যোগে রূপ ধারণ করছে। গত কয়েকদিন ধরে এ অবস্থা শুরু হয়েছে। অর্থাভাবে যমুনা তীরবর্তী এলাকাগুলোর অসংখ্য উদ্বাস্তু পরিবারের সদস্যরা খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের ব্যর্থ চেষ্টা চালাচ্ছে। সহায় সম্বলহীন এসব ভাগ্যবিড়ম্বিত এলাকাবাসীর মধ্যে সরকারি, বেসরকারি ও ব্যক্তি উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিরতণ অতীব জরুরী হয়ে পড়েছে। শীতে শাহজাদপুরসহ যমুনা তীরবর্তী পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলোতে জনজীবনে বিপর্যয় নেমে এসেছে। ফলে এদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ছন্দপতন ঘটেছে।
গতকাল যমুনা তীরবর্তী জামিরতা, কাশিপুর, জগতলা পরিদর্শন করে ও যমুনা তীরবর্তী পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, যমুনা নদী তীরবর্তী শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী, জামিরতা, জগতলা, কাশিপুরসহ যমুনা নদী তীরের বিস্তৃর্ণ ফাঁকা জায়গায় গত  ক’দিন ধরে বেশ জোড়েশোড়েই শৈত্য প্রবাহ বইছে। কনকনে হিমেল হাওয়ায় শীতের তীব্রতা অসহনীয় পর্যায়ে পৌছেছে।
 শাহজাদপুরের চর কৈজুরী, চরগুদিবাড়ি, চিল্যাপাড়া, লোহিন্দাকান্দী, জামিরতা, জাফরগঞ্জ, হঠাৎপাড়া, পাখিরাজপুর, ভেবিগঞ্জ, কাটাজোলা, পূর্ব চরকৈজুরী, উল্টাডাব, পাথালিয়া পাড়া, কৈজুরী এসব গ্রামের হৎদরিদ্র উদ্বাস্তুরা শীতবস্ত্রের অভাবে অতিকষ্টে দিনাতিপাত করছে। এদের মধ্যে অবিলম্বে জরুরী ভিত্তিতে ব্যপক পরিমাণ শীতবস্ত্র বিতরণ জরুরী হয়ে পড়েছে।
 সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার যমুনা তীরবর্তী এলাকা পরিদর্শনকালে এলাকাবাসী জানায়, গত দুই তিন দিন ধরে মাঝে মধ্যেই অকষ্মাৎ তীব্র শীত আর ঘনকুয়াশায় তদের জনজীবন বিপদগ্রস্থ হয়ে পড়ছে। কয়েকদিন আগেও তুলনামুলকভাবে শীতের তীব্রতা একটু কম ছিল। কিন্তু ২/৩ দিন ধরে যমুনা নদীর তীরবর্তী ফাঁকা এলাকাগুলোতে সজোড়ে প্রবাহিত হচ্ছে শৈত্য প্রবাহ। সবচেয়ে বেশী বিপাকে পড়েছেন এলাকার শ্রমজীবী মানুষেরা। তীব্র শীতে তারা স্বাভাবিকভাবে কাজকর্ম করতে না পারায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর কালাতিপাত করছে। হৎদরিদ্র পরিবারের শিশু ও বৃদ্ধরা তীব্র শীতে শীতবস্ত্রের অভাবে জুবুথুবু হয়ে পড়েছে। তাঁত ও গবাদী পশু সমৃদ্ধ শাহজাদপুরের যমুনা নদী তীরবর্তী এলাকাগুলোতে তাঁতবস্ত্র উৎপাদন বহুলাংশে হ্রাস পেয়েছে। জরুরী ভিত্তিতে এসব অসহায়দের মধ্যে ব্যাপকহারে শীতবস্ত্র বিতরণ অতীব জরুরী হয়ে পড়েছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞমহল।
Alert! This website content is protected!