বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

সাতক্ষীরায় পদ্মাসেতু বিজয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত

মোঃ রাহাতুল ইসলাম, সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধিঃ-     

পদ্মা সেতু দৃশ্যমান হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে সাতক্ষীরায় পদ্মাসেতু বিজয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার বিকাল ৫টায় সাতক্ষীরা সঙ্গীতা মোড়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, পৌর ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলাম রনি।
সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী মো: শাহাদৎ হোসেনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত পদ্মাসেতু বিজয় সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম।

বক্তব্য রাখেন, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও পূর্নবাসন সম্পাদক এড. আজহারুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা ইউসুফ সুলতান মিলন।

সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাশি।

এসময় বক্তারা বলেন, আজ স্বপ্নের পদ্মাসেতু দৃশ্যমান হয়েছে। দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। জাতির জনকের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অর্থেই এটি নির্মাণ করে দেখিয়েছেন। এটি আওয়ামীলীগের পক্ষেই সম্ভব। অথচ জামায়াত-বিএনপিররা বলেছিল পদ্মা সেতু নির্মাণ করা আওয়ামীলীগের পক্ষ সম্ভব নয়। সেই অসম্ভবকে আজ বাস্তবে রূপ দিয়েছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। যার পিতা যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশের দায়িত্ব নিয়ে যে স্বপ্ন দেখেছিল তা কিছু বিপথগামীরা বাস্তবায়িত করতে না দিলেও তারই কন্যা ধীরে ধীরে বাস্তবায়ন করে চলেছেন। পদ্মা সেতু নির্মাণে অর্থ সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েও জামায়াত-বিএনপির কারণে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল বিদেশীরা। সেই বিদেশীদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়েছেন কিভাবে নিজের অর্থেই দেশের উন্নয়ন, মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা যায়।

বক্তারা আরো বলেন, সামনে সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচন। এই নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ের লক্ষ্যে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বাছাই করবেন নৌকার প্রার্থী। বাছাইয়ের পর যিনি নৌকা প্রতীক পাবেন তাকেই বিজয়ী করার জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার আহ্বান জানান বক্তারা।
Alert! This website content is protected!