বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

সিরাজগন্জের ৬ নং ওয়ার্ডে উপ নির্বাচন,জয়ী মৃত কাউন্সিলরের স্ত্রী

মোঃ আজাদুল ইসলাম,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে সদ্য নির্বাচিত হওয়া কাউন্সিলর তরিকুল ইসলাম খান হত্যার পরে সেই ৬ নং ওয়ার্ডের উপ নির্বাচনে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নবনির্বাচিত কাউন্সিলর মৃত তরিকুল ইসলাম খানের স্ত্রী মোছাঃ হাসিনা খাতুন ডালিম প্রতীক নিয়ে কাউন্সিলর পদে জয়ী হয়েছেন। নির্বাচনে তার প্রাপ্ত ভোট ৫  হাজার ৫০৪।
রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডে এই পুনঃনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে এস এম তারেক রহমান পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ ভোট, এস এম শাহাদাৎ হোসেন পানির বোতল প্রতীকে ৩ ভোট, রাশিদুল হাসান (ফসি) ব্লাকবোর্ড প্রতীকে ৪ ভোট, পলাতক শাহাদাৎ হোসেন বুদ্দিন উট পাখি প্রতীকে ১৩ ভোট ও সাইফুল ইসলাম ব্রীজ প্রতীকে ৩ ভোট। উপনির্বাচনে মোট ভোট পড়েছে ৫ হাজার ৫৪৭ এবং নষ্ট হয়েছে ১৮ ভোট।
সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আজিজার রহমান বলেন, উপ নির্বাচনে নিহত তরিকুল ইসলাম খানের স্ত্রী মোছাঃ হাসিনা খাতুন ৫৫০৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।
উল্লেখ্য, গত ১৬ জানুয়ারি সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ভোট গণনায় ৮৫ ভোটে বিজয়ী হন তরিকুল ইসলাম। ফলাফল ঘোষণার পরপরই পরাজিত প্রার্থী শাহাদত হোসেন বুদ্দিনের সমর্থকরা বিজয়ী প্রার্থীর ওপর হামলায় চালায়। এসময় পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে বিজয়ী কাউন্সিলর তরিকুল গুরুতর আহত হন। ওইদিন রাত ৮টার দিকে শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।
Alert! This website content is protected!