বি.দ্রঃদৈনিক নতুন ভাবনাপত্রিকায় প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার সম্পূর্ন লেখকের/প্রতিনিধির।আমরা লেখক প্রতিনিধির চিন্তা ও মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।প্রকাশিত লেখার সাথে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল সবসময় নাও থাকতে পারে।তাই যে কোনো লেখার জন্য অত্র পত্রিকার কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।

তাজা খবর

স্বরূপকাঠীর বরছা-কাঠীতে আগুনে পুড়ে বসত বাড়ী ছাই

নিজস্ব সংবাদদাতা: নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠী) উপজেলার বরছাকাঠী এলাকায়, রবিবার দুপুরে একটি বসতঘরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকান্ডে ওই বাড়ির সকল কক্ষ ও কক্ষের ভেতরে থাকা বিভিন্ন মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এসময় দীর্ঘ এক ঘন্টা চেষ্টারপর আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বরছাকাঠী নিবাসি মো: শাহ আলম এর পুত্র, মো: রিপন মিয়ার বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। প্রাথমিক ধারনা করা হচ্ছে ওই বাড়ির একটি কক্ষ থেকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্টিকের মাধ্যমে আগুন জ্বলে উঠে এবং মুহুর্তেই আগুন অন্যান্য কক্ষে ছড়িয়ে পড়ে। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয় এলাকাবাসী। এলাকাবাসী আরো জানান ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দূরত্ব বেশি থাকায় ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছানোর চআগেই তারা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে ওই বাড়ির সকল কক্ষ ও কক্ষগুলোর ভেতরে থাকা টাকা, ফ্রিজ, টেলিভিশন, বৈদ্যুতিক পাখা, আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে যায়। তবে এ দুর্ঘটনায় কেউ আহত বা প্রান নাশের ঘটনা এখনও শোনা যায়নি। ঘটনাস্থলে থাকা এক প্রত্যক্ষদর্শী অভিযোগ করে বলেন, গত শুক্রবার একইরকম সোহাগলের পঞ্চায়েতবাড়ী এলাকায় একটি বসত বাড়ীতে আগুনে লাগে। সেখানেও ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট আসার পূর্বেই ঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্বরূপকাঠী নদীর পশ্চিমপাড়ে এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরেই একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের দাবী জানিয়ে আসলেও এখন পর্যন্ত কোনো সুরহা মেলেনি। তারা আবারো উর্ধতন কর্মকর্তদের কাছে দাবি জানিয়েছেন অতিরেই যেনো নদীর পশ্চিমপাড়ে একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপন করা হয়। তাহলে হয়তো ভবিষ্যতে এরকম দুর্ঘটনার কবল থেকে কিছুটা হলেও পরিত্রান পাবে তারা।

Alert! This website content is protected!